পুনর্ভবা : আমরা তোমার কথা ভাবি

পুনর্ভবা দক্ষিণ দিনাজপুরের একটা গুরুত্বপূর্ণ নদী। অভিবক্ত দিনাজপুরের অন্যতম প্রধান নদী। নিজেদের নদীকে যেন জানতে পারে, চিনতে পারে পুনর্ভবা নদীকে স্থানীয় বাসিন্দারা সে জন্য একটি পরিকল্পনার সূচনা করলো বালুরঘাটের ইনোভেটিভ গ্রীণ আইডিয়াজ অ্যান্ড লাইনস এবং গঙ্গারামপুরের পুনর্ভবা পরিবেশপ্রেমী সংগঠন। সহযোগিতায় আছে পরিবেশপ্রেমী সংস্থা দিশারী সংকল্প। পুনর্ভবা স্থিত ঐতিহাসিক বাণগড় থেকে এই প্রকল্পের সূচনা কর্মসূচিতে আমার সাথে উপস্থিত ছিলেন গঙ্গারামপুরের পুনর্ভবা পরিবেশপ্রেমী সংগঠনের সম্পাদক সনাতন তামলি, অধ্যাপক ও পুনর্ভবা নদী পাড়ের সন্তান অরূপ সাহা এবং পরিবেশ বন্ধু অধ্যাপক দেবাশিস চাকি। হামজাপুর সীমান্ত দিয়ে যেখানে গঙ্গারামপুর ব্লকে প্রবেশ করেছে পুনর্ভবা নদী সেখান…

বিশ্ব নদী দিবস : নদী সুরক্ষায় তৃণমূল পর্যায়ে পদক্ষেপ চাই

তৃণমূল

মো.ইউসুফ আলী >> আজ বিশ্ব নদী দিবস। নদীকে রক্ষা করতে বিশ্বের বহু দেশে দিবসটি পালিত হচ্ছে। দিবসটি উদযাপনের ক্ষেত্রে অঞ্চলভিত্তিক প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়ে থাকে। এ বছর বাংলাদেশের জন্য প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে- ‘দূষণমুক্ত নদী, সুস্থ জীবন’। দিবসটির সূচনা আশির দশকে কানাডার ব্রিটিশ কলাম্বিয়া রাজ্যে হলেও বাংলাদেশে পালিত হচ্ছে ২০১০ সাল থেকে। বাংলাদেশে নদী দিবস পালন একটি ভিন্ন তাৎপর্য। যেখানে নদী আমাদের দৈনন্দিন জীবন ও জীবিকার অংশ। সেখানে নদী দিবস পালন করে এর গুরুত্ব মনে করিয়ে দিতে হচ্ছে! এই পরিস্থিতি একদিনে হয়নি। নদীর আশীর্বাদে আমাদের ভূ-প্রকৃতি, সভ্যতা, সংস্কৃতি, যোগাযোগ ও…

বিশ্ব নদী দিবস ও আমার কিছু কথা 

Tapas Das

মুখে মাস্ক, হাতে ঘন ঘন জীবাণু নাশক তরল আর চেনা-পরিচিতর মৃত্যুর খবর। একেই অনেকে বলতে চাইছেন ‘নিউ নরমাল’। নদী বাঁচাও জীবন বাঁচাও আন্দোলনের সাথী-দাদা ত্রিলোকেশ কুণ্ডু বেশ মজার মজার উদাহরণ দিয়ে কঠিন কথা বোঝাতে পারেন। সেদিন বলছিলেন, ‘কোন ছুতোর মিস্ত্রীর কাজ করতে গিয়ে হাত কেটে গেলে দেখবেন ক্ষততে গালার প্রলেপ দেবেন, পান বিক্রেতা চুন, গেরেজের মিস্ত্রী পোড়া মোবিল, আর গৃহস্থালি কাজে হাত কাটলে মা-বোনেরা এক মুঠো চিনি দিয়ে চেপে ধরেণ। সহজলভ্যতা আমাদের উপশম দেয়। অর্থাৎ যে যেমন পরিবেশে আছেন তার বাঁচার রসদ সেখান থেকেই আসে। আবার অপর দিকে বহুজাতিক সংস্থার…

নদী ও পরিবেশের জন্য আশির্বাদ হয়ে এসেছে করোনা ভাইরাস ।। নদীপুত্র সুমন শামস

করোনা

করোনাকালে অঘোষিত লকডাউনে দীর্ঘদিন নদীতে লঞ্চ-স্টিমার চলাচল বন্ধ থাকার কারণে বুড়িগঙ্গা নদীসহ দেশের প্রায় সকল নদ-নদীর পানির গুণগত মান বেড়েছে। পণ্যবাহী জাহাজ ছাড়া দীর্ঘ দুইমাস নদীতে চলেনি যাত্রীবাহী কোন ধরণের লঞ্চ-স্টিমার। ইঞ্জিনের ভট ভট বা ভোঁ ভোঁ শব্দ ছিলো না। একই সময়ে নদীর তীরের কলকারখানাও বন্ধ ছিল। পানিতে মিশতে পারেনি কল-কারখানার দূষিত বর্জ্য। তাই শান্ত নদীর বুকে এখন শুধু মৃদু ঢেউয়ের কলকল ধ্বনি। ঢাকার প্রধান নদী বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, বালু, শীতলক্ষ্যা নদীর পানি এখন আগের চেয়ে অনেক বেশী স্বচ্ছ। এই রকম পরিস্কার পানির বুড়িগঙ্গা নদী বাঁচাতে কলকারখানার বর্জ্য শোধনাগার পরিবেশসম্মত করতে…

বানের পানি চোখের জল একাকার!

নৌ-দুর্ঘটনা

মো.ইউসুফ আলী ।। দেশে একদিকে করোনা আরেক দিকে বন্যা। আবার এসেছে ঈদ। সাধারন খেটে খাওয়া মানুষের কাজকর্ম স্থবির। কি করবে মানুষ! কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে? কোথায় মিলবে ঠাঁই? এসব হিসেব মিলাতে দিশেহারা আজ দেশবাসী। করোনা আক্রান্তে কাপঁছে দেশ। প্রতিদিন হাসপাতাল গুলেতে বাড়ছে করোনা রোগির সংখ্যা। এ মহামারি সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে সরকার। হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতালগুলো। অতিরিক্ত রোগিতে কাহিল ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীরাও। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী আজ পর্যন্ত সারাদেশে আক্রান্ত রোগীর সংখ্য একলক্ষ একাশি হাজার একশ উনত্রিশ জন। মৃত্যু হয়েছে অন্তত দুই হাজার তিনশ পাঁচ জনের। তবে সরকারি হিসেব এমনটা হলেও সারাদেশে বাসাবাড়িতে…

চাঁদপুরের নদী, প্রকৃতি ও ইলিশ ।। সৌম্য সালেক

ইলিশ

‘নদীমাতৃক একটি ভূগোল ঘুরতে ঘুরতে আমি ঘুরে এলাম উড়তে উড়তে আমি উড়ে এলাম না কোনো রহস্য ছিল না না কোন চমক ছিল না কেবল একঘেয়ে এক ক্লান্তি দেখতে দেখতে আমি হয়ে উঠি যুগলতা আমি দেখতে দেখতে খসিয়েছিলাম শরীরের তাবৎ ক্লান্তি ওম শান্তি, ওম শান্তি’ –কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা আমরা নদীমাতৃক ভূ-ভাগের অধিবাসী। নদীর প্রভাবে আমরা নানাভাবে প্রতীকায়িত হয়েছি। নদীর বাঁধাহীন ছুটে চলার সাথে মিল রয়েছে মানব জীবনের প্রবাহমানতার। নদীর ইতিহাসও মানুষের ইতিহাসের মতোই প্রাচীন এবং বৈচিত্রপূর্ণ। বাংলাদেশের পুরো ভূগোলজুড়ে জালের মতো ছড়িয়ে বিছিয়ে রয়েছে অনেক নদী। শাখা-প্রশাখাসহ প্রায় ৮০০ নদ-নদীর…

আনন্দাশ্রু ফুলেশ্বরী

ফুলেশ্বরী

নব্বইয়ের দশকের শুরুতে প্রাইমারি শেষ করে সবে হাইস্কুলের চৌকাঠে পা রাখছি। বন্ধুদের সাথে সকাল বিকাল নদীতে ডুবসাঁতার মলাই খেলা আর স্কুলে যাওয়া আসা। খেলাধুলা মন ও মগজ অষ্টপ্রহর। স্কুলের তোতাপাখির মুখস্ত বিদ্যা ছাড়া মেধা ও মনন বিকাশের বয়স হয়নি। খেলাধুলার ফাঁকে গ্রামে যেসব সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড হতো তা হলো পালাগান, মহরমের জারি, ছায়াবানি দস্তর আলীর প্রেমকাহিনীর পুঁথিপাঠের আসর, বাউল সন্ধ্যা এইসব। রহিম বাদশা ও রূপবানের পালাগান ও ঝুমুর যাত্রানাট্যে মাঝিদের গান ও অভিনয় আজো মনে দাগ কাটে। এসবের বাহিরে আপডেট সাংস্কৃতিক মাধ্যম ছিলো বিটিভিতে মাসে একটি বাংলা সিনেমা ও ভাড়ায় চালিত…

হালদা নদীকে বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ ঘোষণা: যৌক্তিকতা ও বিশ্লেষণ

বঙ্গবন্ধু

ড. মো. মনজুরুল কিবরীয়া ।। বাংলাদেশ নদীমাতৃক দেশ- কথাটি কেবল আক্ষরিক অর্থেই নয়, সামগ্রিক অর্থেই সত্য। বাংলাদেশের মানচিত্র নদীর কল্যাণেই সৃষ্ট। ঐতিহাসিক কাল থেকেই বাংলা ভূখণ্ডের মাটি ও মানুষের সঙ্গে নদ-নদী ওতপ্রোতভাবে সম্পৃক্ত। সবুজ শ্যামল সৌন্দর্যের চাবিকাঠির একমাত্র বাহক ও নিয়ন্ত্রক। বাংলাদেশে সভ্যতার ক্রমবিকাশ, যোগাযোগ- অর্থনীতির মূল ভিত্তি রচিত হয়েছে নদীকে কেন্দ্র করে তেমনি সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যেরও মূল ভিত্তি নদী নির্ভর। সাহিত্য, গান, নাটক, চলচ্চিত্রে নানাভাবে উঠে এসেছে নদীর প্রসঙ্গ। অথচ আমরা নদীকে নিয়ে কতটুকু ভাবি বা জানি। যে দেশ নদীর কল্যাণে গড়ে উঠেছে সেদেশেই নদী সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত…

তদন্তেই সীমাবদ্ধ সব নৌ-দুর্ঘটনা : আর কত প্রাণ দিলে এর অবসান ঘটবে!

নৌ-দুর্ঘটনা

মো. ইউসুফ আলী ।।  আবারো লঞ্চ ডুবি। আবারো প্রাণহানী। এবারতো একেবারে তীরে এসে তরী ডুবলো। ময়ূর-২ এর ধাক্কায় অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে ডুবে গেল মর্নিং বার্ড নামের ছোট একটি লঞ্চ। মুন্সিগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা লঞ্চটি একেবারে সদরঘাটের নিকটে এসেই ডুবলো। এতে শিশু ও নারীসহ অন্তত ৩৩ জনের প্রাণ গেলো। প্রতি বছরই এভাবে একের পর এক নৌ-দুর্ঘটনা ঘটেই চলছে। এ যেন কোন ভাবেই থামছে না। তাই দেশের সচেতন মানুষের কাছে এটা এখন প্রশ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে যে, নৌ-পথে আর কত প্রাণ দিলে এর অবসান ঘটবে। কারণ একের পর এক নৌ-দুর্ঘটনা যেমন ঘটেই…

এই সময়ে যেমন আছে আমার নদী : তুহিন শুভ্র মন্ডল

আমার

এই সময়।এই সময়টাকে কিভাবে ব্যাখ্যা করা যায়? বিশেষ সময়?  জরুরী সময়?  ভয়ংকর সময়? মহামারি পেরিয়ে অতিমারির সময়? কিভাবে? সব ভাবেই বলা যেতে পারে।আর একভাবে বলা যেতে পারে যে এটা মানব সভ্যতার বড় সঙ্কটের সময়। কিন্ত প্রকৃতির কাছে? আমার নদীর কাছে? এ বড় সুখের সময়, আনন্দের সময়। এই সময়ে কেমন আছে আমার নদী? আমার মনে হয় ভাল আছে এবং খুব ভাল আছে। এবং যতটুকু অনুভব করেছি এ নদীকে সে এমন ভালই সবসময় থাকতে চায়। করোনা ভাইরাসের ভয়ংকর এই সময়ে মানুষের পদচারণা কম। যান্ত্রিক সভ্যতা আর উন্নয়নের ভুল ব্যাখ্যায় মেতে থাকা মানুষ…

মাঝির তুলনায় জেলেদের করোনা সংক্রমনের ভয় বেশি, কিন্তু কেন?

জেলেদের করোনা

ভারতের দক্ষিণদিনাজপুর থেকে : আচ্ছা বলুন তো যারা জেলে অর্থাৎ মৎস্যজীবী করোনা পরিস্থিতির ফলে তাদের অবস্থা কি? কি আবার? যথা পূর্বং তথা পরং।অর্থাৎ সোজা ভাবে বললে একই। করোনা পরিস্থিতির আগেও যা, পরেও তা। আর মাঝি দের অবস্থা? তাদেরও তো একই। কেন? সেই কথাতেই আসছি। তবে হ্যাঁ, মৎস্যজীবী বা জেলেদের করোনায় আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা তুলনায় বেশি। সে কথাও বলবো। খুব সহজ ভাবে বলা যেতে পারে গত এক মাস থেকে করোনা ভাইরাসের ভয়াল দিক আমাদের সামনে এসেছে।এই এক মাসে নদীর অবস্থা কি ভাল হয়েছে? উত্তর হচ্ছে না।বর্ষা মরশুম আসতে এখনও অনেক দেরি।এই…

ব্রীজই মেরে ফেলেছে সিংগুয়া নদীকে

বাংলাদেশকে নদীমাতৃক দেশ বলা হলেও বর্তমানে দেশের অনেক নদী মৃত প্রায়। ইতিমধ্যে অনেক নদী তার নাব্যতা হারিয়েছে। প্রাকৃতিকভাবেই নদ-নদীগুলো তাদের নিজস্ব গতিতে চলে। নদীতে বাঁধ, অবৈধ দখল, মাটিভরাটসহ বিভিন্ন আবর্জনা ফেলে মানুষ নদীর গতিপথে বাঁধার সৃষ্টি করছে। অপরিকল্পিত নকশায় নদীতে নীচু করে ব্রীজ নির্মাণ করায় নদী তার নাব্যতা হারাচ্ছে, নদীর গতিপথে বাধাঁ সৃষ্টি হচ্ছে। যার ফলে যে কোন সময় প্রাকৃতিক দূর্যোগ তৈরি হতে পারে। সিংগুয়া নদীটি পাকুন্দিয়া উপজেলার এগারসিন্দুরের খামাবিল হতে উৎপন্ন হয়ে গচিহাটা ও নিকলী হয়ে ঘোড়াউতরায় মিলিত হয়েছে। নদীটির দৈর্ঘ্য (প্রায় ২২.৪ কি.মি) কিশোরগঞ্জ জেলার পাকুন্দিয়া , কটিয়াদী,…