“আত্রেয়ীর উপাখ্যান”-শুধু একটি নাটক নয়, জীবনের উপাখ্যান 

আত্রেয়ীর
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

গ্রীণ থিয়েটারের চর্চা দীর্ঘদিন ধরেই করে বালুরঘাটের কাছেই থাকা অযোধ্যা কে ডি বিদ্যানিকেতন। তাদেরই নবতম প্রযোজনা “আত্রেয়ীর উপাখ্যান”। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার প্রধান নদী আত্রেয়ীকে নিয়েই এই উপাখ্যান। স্কুলের ছাত্র- ছাত্রীরা নদীকে ভালবেসে যে তাকেই জীবন করে নিয়েছে তা বোঝা যায় নাটকটির মঞ্চায়ন দেখেই। শুরু থেকে শেষ অবধি গানের সুতোয়, জীবনের কথায়-যন্ত্রণায় মিলে- মিশে আছে নদীরই কথা।

আর সে কথাই তাদের কথায়, অভিনয়ে, গানে বাঙ্ময় করে তুললো প্রিয়াঙ্কা, বিউটি, সুশান্ত, রাহুল, সুপ্রিয়া, অর্পিতা, রিঙ্কি, সরস্বতী, ,মানস,দুই বৃষ্টি, পিয়া, বিশ্বজিত, রাজকুমার, বন্দনা, সুনতি, লাবনি, প্রণবরা। নাটকটির শুরুই হচ্ছে নদীকে আমরা যে যে ভাবে ব্যবহার করি সেই দৃশ্য দিয়ে। তারপর কথক তার কথার মধ্য দিয়ে আত্রেয়ীর ঐতিহ্য, অতীত, বর্তমান, আত্রেয়ীর সমস্যা সমূহ তুলে ধরলেন। একটি দৃশ্যে মৎস্যজীবী বলবে- ‘নদী ভাল নাই গো- নদী ভাল নাই’…. এবং তার পরেই উঠে আসবে মানুষের ভাল না থাকার কথা, দেশান্তরী হওয়ার কথা,নারী পাচারের কথা এবং একটা ব্যর্থ – হতাশ জীবনের কথা। অথচ নদীটা যদি ভাল থাকতো তাহলে তো এমন কিছু ঘটতো না। এই নদী আত্রেয়ী তো সীমান্তের ওপারেও আছে।মাঝখানের কাঁটাতার কি তাকে আটকে রাখতে পারে? নদীর কোন দেশ আছে? নদীর কোন সীমা?

তারপরেই গানের মাধ্যমে প্রশ্ন তোলে মানুষ ‘নদীর দেশ নাই/ কেন কাঁটাতার?’ তাইতো এ পারের পড়ুয়ারা নদীর জলেই ভাসিয়ে দেয় নদীকে ভালবাসার চিঠি, বন্ধুত্বের চিঠি- ‘ নদীর জলে চিঠি চলে/ চলে মোদের বন্ধুতা/ চলো না সবাই মিলে যাই/ একসাথে মোরা বাঁচাই/ এই মোদের আত্রেয়ী কথা…

অযোধ্যা কে ডি বিদ্যানিকেতনের নবতম প্রযোজনা “আত্রেয়ীর উপাখ্যান”

দর্শকের প্রভূত প্রশংসা এই নাটকের ছোট্ট কুশীলব দের যে আরও অণুপ্রাণিত করবে তাতে কোন সন্দেহ নেই। সোস্যাল মিডিয়াতেও “আত্রেয়ীর উপাখ্যান” নাটক নিয়ে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া মিলেছে। লেখক কৌশিক রঞ্জন খাঁ লিখছেন- নাটকে আত্রেয়ী ।নদীর সমস্যা নিপুন ভাবে উঠে এসেছে। মঞ্চ কাঁপিয়ে অভিনয় করেছে অযোধ্যা কে ডি বিদ্যানিকেতনের ছাত্রী- ছাত্রীরা। কবি অমল বসু লিখেছেন- অনবদ্য নাট্যপরিকল্পনা ও উপস্থাপনা।’ দর্শকের সন্মিলিত মন্তব্য জড়ো করলে যেটা দাঁড়ায় তা হলো -এটা একটা অন্যমাত্রার প্রযোজনা। এতজন একসাথে তবু কি সুন্দর নাটকের চলন! এই নাটকে উঠে এসেছে নদীর লড়াই। নদীকে ভাল রাখার, নদীকে বাঁচানোর আর্তি। কথার গভীরতায়, আলো, মঞ্চ, আবহর যোগ্য সহায়তায় এই নাটক আর শুধু নাটক থাকেনি হয়ে উঠেছে আস্ত একটা জীবনের উপাখ্যান।

আরো পড়তে পারেন….

নদী নিয়ে কিছু কথা

অঞ্জনা নদীর তীরে

নদী দখলদারদের তালিকা প্রকাশ

সংশ্লিষ্ট বিষয়