Blog

“ঢাকাকে বাঁচাতে বুড়িগঙ্গাকে রক্ষা করতেই হবে”

“ঢাকাকে বাঁচাতে বুড়িগঙ্গাকে রক্ষা করতেই হবে”

রবিবার, ৫ জুন ২০২২, বসিলা,  ঢাকা ।। দূষণের কারণে বুড়িগঙ্গা নদী ও এর আশেপাশের পরিবেশ মারাত্মক হুমকিতে। ঢাকার প্রাণ বুড়িগঙ্গাকে বাঁচাতে তাই সবার আগে দূষণ বন্ধ করতে হবে। এই নদীর পানি এমন পর্যায়ে নিয়ে যেতে হবে, যাতে মানুষ এতে গোসল করতে পারে। একইসাথে এই নদীর পরিবেশগত ভারসম্য রক্ষা করতে হবে-  বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে দূষণমুক্ত নদীর দাবিতে ‘বুড়িগঙ্গায় গণগোসল’ নামে একটি ব্যতিক্রমী আয়োজনে অংশ নিযে নিয়ে নদীপাড়ের মানুষ, পরিবেশকর্মী, গবেষক, শিক্ষক, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, যুব নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন। ………………………………. পড়ুন একটি নদী বিষয়ক গল্প রাজেশ ধর এর গল্প-  ‘জলমুক্তি…

দূষণমুক্ত নদীর দাবিতে ‘বুড়িগঙ্গায় গণগোসল’ রোববার

রিভার বাংলা

আগামী ৫ জুন রোববার  বিশ্ব পরিবেশ দিবস- ২০২২ উপলক্ষে দূষণমুক্ত নদীর দাবিতে ‘বুড়িগঙ্গায় গণগোসল’ নামে একটি ব্যতিক্রমী আয়োজন করেছে জেসিআই ঢাকা নর্থ, ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ, রিভার অ্যান্ড ডেল্টা রিসার্চ সেন্টার ও বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপা। আয়োজকরা রিভার বাংলাকে বলেন- বুড়িগঙ্গার পানিকে গোসলের উপযোগী করা, দূষণমুক্ত পরিবেশ তৈরি এবং বুড়িগঙ্গার নদী দূষণের শিকার ব্যক্তিদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এই উদ্যোগ নিয়েছেন আয়োজকরা। ৫ জুন সকালে মোহাম্মদপুর বসিলা ব্রিজ এলাকায় আয়োজিত এই গণগোসল অনুষ্ঠানে নদীপাড়ের মানুষ, কর্তব্যরত ব্যক্তিবর্গ, পরিবেশকর্মী, গবেষক, শিক্ষক, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, যুব নেতৃবৃন্দ, সেলিব্রেটি ও মিডিয়া কর্মীসহ কয়েকশ মানুষ উপস্থিত থাকবেন। বুড়িগঙ্গা…

রাজেশ ধর এর গল্প-  ‘জলমুক্তি জিন্দাবাদ’

রাজেশ ধর এর গল্প-  ‘জলমুক্তি জিন্দাবাদ’

‘দাদ্দু, জলমুক্তি কী গ!’ চুপ করে থাকে বিষাণ সিং। কাঁধের ছেঁড়া রঙচটা লাল গামছা দিয়ে পিঠটা ঝেড়ে নেয়। মনে হয় দু-চারটে ডেউয়া পিঁপড়ে ঘুরঘুর করছে। এখনো কামড়ায়নি। বড্ড বিষ, জ্বালা করে! ‘হেই দাদ্দু, এই গামছাটো হামাক দিবা কিন্তুক। হামি ইটো লিয়ে শাড়ি বানাইবো।’ একটুখানি হাসে বিষাণ। আবার তাকিয়ে থাকে ‘দামোদরজীর’ দিকে। বর্ষা এসে গেছে, তাও দু’সপ্তাহ। কিন্তু আকাশে কালো মেঘ কই! ‘দামোদরজীর’ বুকে জল নেই। তিন মাইল চওড়া নদীর বুকে আড়াআড়ি হাত তিরিশেক জল। তার মাঝে হাত নয়-দশ গভীর, মানে বুক সমান জল। তবে স্রোত আছে। লোকজনেরা নদীকে জানে। এখানে,…

দূষণের প্রতিবাদ : ৫ জুন বুড়িগঙ্গায় গণগোসল

দূষণের প্রতিবাদ : ৫ জুন বুড়িগঙ্গায় গণগোসল

বুড়িগঙ্গা নদী ঢাকা শহরের জন্য শুধু অর্থনৈতিকভাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণই নয়, বরং এটি ঢাকার ত্রাণকর্তাও। এই নদী দেশের অনেক এলাকাকে সংযুক্ত করে রেখেছে। বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে প্রায় ৫.১ মিলিয়ন মানুষ বাস করে। আজ এই নদী সামগ্রিকভাবে দূষণে জর্জরিত। কল-কারখানার রাসায়নিক বর্জ্য, গৃহস্থালির বর্জ্য, চিকিৎসা বর্জ্য, পয়োনিষ্কাশন, মৃত প্রাণী, প্লাস্টিক ও তেল বুড়িগঙ্গাকে প্রতিনিয়তই দূষণ করে চলেছে। ঢাকা শহর প্রতিদিন প্রায় ৪,৫০০ টন কঠিন বর্জ্য নিষ্কাশন করে এবং এর বেশিরভাগই বুড়িগঙ্গায় পতিত হয়। বুড়িগঙ্গার দূষণের কারণে আশপাশের পরিবেশ, সামুদ্রিক জীবন ও মানুষ সবই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। বুড়িগঙ্গার এই দূষণ অত্র অঞ্চলের পরিবেশগত ভারসাম্য…

তিন চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে তুরাগ নদী মোর্চার যাত্রা শুরু

তুরাগনদী

তুরাগ নদীকে দূষণ ও দখলমুক্ত করার প্রত্যয়ে আজ শনিবার [১২ মার্চ, ২০২২] বিকালে ওয়াটার কিপার্স বাংলাদেশ কনসোর্টিয়ামের দূষণ বিরোধী অ্যাডভোকেসি প্রকল্পের আওতায় তুরাগ নদী পাড়ের সংগঠনসমূহ ও ওয়াটার কিপার্স বাংলাদেশের যৌথ আয়োজনে এক কমিউনিটি সভার আয়োজন করা হয়। আমিন বাজার ইউনিয়নের মরিচারটেকের উত্তরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এই কমিউনিটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আমিন বাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. রকিব আহম্মেদ। সভায় সভাপতিত্ব করেন রিভার এন্ড ডেল্টা রিসার্চ সেন্টারের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এজাজ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাউন্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল আলম খান এবং বিরুলিয়া…

রিভার বাংলা ও আরডিআরসি’র যৌথ আয়োজনে “মুক্তিযুদ্ধে নদী” অনুষ্ঠান

রিভার বাংলা

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের শতদিনের উৎসবের অংশ হিসেবে আগামী ২৯ জানুয়ারি ২০২২ শনিবার বিকাল তিনটায় নদী বিষয়ক সংগঠন রিভার বাংলা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান রিভার অ্যান্ড ডেল্টা রিসার্চ সেন্টার-আরডিআরসি’র যৌথ আয়োজনে “মুক্তিযুদ্ধে নদী” শিরোনমে এক প্রদর্শণী, আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। রিভার বাংলা’র সমন্বয়ক ও লেখক ফয়সাল আহমেদ এর সভাপতিত্বে উক্ত আয়োজনে সম্মানীত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শাহজাহান কবির বীরপ্রতীক। আলোচনা করবেন রিভার অ্যান্ড ডেল্টা রিসার্চ সেন্টার-আরডিআরসি’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এজাজ ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষক সত্যজিৎ রায় মজুমদার। অনুষ্ঠানের শুরুতে হবে মুক্তিযুদ্ধে নদীর অবদান ও এ সংক্রান্ত…

নদী দিবসে আরডিআরসি’র আয়োজনে ক্রিকেট ম্যাচ

বিশ্ব নদী দিবস- ২০২১ উপলক্ষে রিভার অ্যান্ড ডেল্টা রিসার্চ সেন্টার (আরডিআরসি) এর আয়োজনে প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল (২৫ সেপ্টেম্বর-২০২১) রাতে রাজধানীর আগারগাঁও এলাকার জিটিসিএল ভবনের সামনে অনুষ্ঠিত খেলায় অংশগ্রহণ করে বুড়িগঙ্গা ও তুরাগ নামের দুটি দল। ১০ ওভারের এই খেলায় চ্যাম্পিয়ান হয় বুড়িগঙ্গা নদী দল। তারা ৪৭ রানে তুরাগ নদী দলকে পরাজিত করে। আরডিআরসি’র এই অয়োজনে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযুদ্ধ গবেষক ও লেখক সত্যজিৎ রায় মজুমদার, রিভার বাংলার সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ, জাগতিক প্রকাশন এর কর্ণধার রহিম রানা ও আরডিআরসি’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এজাজ। এবিষয়ে মুক্তিযুদ্ধ গবেষক ও লেখক…

ফয়সাল আহমেদ সম্পাদিত নদী বিষয়ক বই- ‘প্রিয় নদীর গল্প’ প্রকাশিত

ফয়সাল

রিভার বাংলা সম্পাদক ও  লেখক, গবেষক ফয়সাল আহমেদ সম্পাদিত নদীবিষয়ক বই ‘প্রিয় নদীর গল্প’ প্রকাশিত হয়েছে। সৃজনশীল প্রকাশনা সংস্থা ‘জাগতিক প্রকাশন’ বইটি প্রকাশ করেছে। অবিমৃশ্যকারীদের দুর্বুদ্ধিতে সাময়িক লোভ ও লাভের হিসেব বড় করে দেখতে গিয়ে স্বাভাবিক নদীগুলোর সঙ্গে যথেচ্ছচারের ত্রæটি করেনি সভ্য মানুষ! আরও মর্মান্তিক যে, উন্নয়নের নামে বিরামহীন আত্মঘাতী নদী-শাসন! অথচ নদ-নদীর ইতিহাসই বাঙলার ইতিহাস। নদ-নদীর তীরে তীরে মানব সভ্যতা অগ্রগতির চিহ্ন এঁকে রাখে; মানুষের বসতি, কৃষির পত্তন, প্রাম-নগর, বাজার-বন্দর, শিল্প-সাহিত্য, ধর্মকর্ম সবকিছুরই বিকাশ ঘটায়। দুর্বৃত্তদের বিপরীতে কল্যাণকামী মানুষের মননে রক্তক্ষরণ সচল রাখতে পারছে না নদীর নাব্যতা। আশাবাদী মানুষও…

খরস্রোতা সময়, তবু সরস্বতী নদীর প্রাসঙ্গিকতা : সাতকর্ণী ঘোষ

কিংবদন্তীর নদীরা কবিরা নদীকে বলেছেন জীবন, আবার জীবনকে নদী। কবিরা নদীকে বলেছেন নারী, আবার নারীকে নদী। আসলে নদী মানে তো আমাদের সুপ্রাচীন ঐতিহ্য। আমাদের ভৌগোলিক ভুবনে আলাপ-আলাপনের এক আশ্রয়। নৌকোর সঙ্গে ‘পরকীয়া’। কবেকার সেই বনলতা সেনের মতো। তার জন্যে আমাদের হাজার বছর ধরে হাঁটা। নদী ছিল তখন ব্রহ্মার কাছে। সগর বংশের পুত্রদের বাঁচানোর জন্য ভগীরথের তপস্যায় নদী মর্ত্যে নমে এল। মধ্যে নদীর তীব্র বেগ মহাদেব তাঁর মস্তকের জটাজুট জালে ধারণ করলেন। ভগীরথের তপস্যায় মর্ত্যে নামার পথে ঘটল এক বিপত্তি। যাত্রাপথের মাঝে তপস্যারত জহ্নু মুনির আশ্রমের প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ভেসে গেল নদীর…

জলঢাকা নদীর গল্পে মিশে আছে গাঠিয়া নদীও

একটা নদী, যে নদী আকাশকে দু’হাত বাড়িয়ে নিজের দিকে আমন্ত্রণ জানায়। একটা নদী, যে নদী জলের সঙ্গেই তার বুকে স্থান দেয় নুড়ি আর ছোট-বড় পাথরকে। একটা নদী, যে নদী অনন্ত শব্দের সঙ্গে বেঁধেছে ঘর একটা নদী, হয়ে নদী নবে রাখে না কে আপন আর কেই বা পর হ্যাঁ, সবাইকেই তার বুকে স্থান দেয় জলঢাকা। যারাই তার বুকে অনন্ত শব্দ ব্রহ্মের সঙ্গে স্থান পেতে চায়। জলঢাকা নদীকে প্রথম দেখি বড় বেলায় কোচবিহারে যাওয়ার পথে ময়নাগুড়ি আর ধুপগুড়ির মাঝে। তারও আগে ছোটবেলায় ভূগোল বইতে জলঢাকায় গড়ে ওঠা জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের মাধ্যমে জলঢাকার নাম…

প্রিয় ক্যাম্পাস তোমার মাগুরমারি নদীকে ।। তুহিন শুভ্র মন্ডল

প্রিয় ক্যাম্পাস তোমার মাগুরমারি নদীকে আমি ফিরিয়ে আনতে চাই। এই টুকু লেখার পর অনেকেই বুঝতে পারছেন যে আমি কোন ক্যাম্পাস আর কোন মাগুরমারির কথা বলছি। আবার অনেকেই বুঝতে পারছেন না হয়তো যে এ কোন ক্যাম্পাস? তাদের বলি আমার বুকের ভিতর সবুজ রঙা মন কেমন পাহাড়ের কুলকুল জলের ক্যাম্পাস আছে। যেখানে পাখির শৈশব মনে করিয়ে দেওয়া ডাক আছে, উথাল-পাথাল বিকেল আছে। বন্ধুতার খোলা চিঠি আছে। নস্টালজিয়ার বাতাস আছে। আর আছে ভালোবাসার গল্পগাছা। এমন একটা স্বপ্নমাখা ক্যাম্পাসের নাম উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়। মাগুরমারি নদী তার দোসর।মাগুরমারি? স্থানীয়রা বলেন একসময় নদীতে প্রচুর মাগুর মাছ পাওয়া…

‘কাঁদো নদী কাঁদো’: সময়ের আয়না- রুখসানা কাজল

অতিমারির দাপটে ধরিত্রীর এই শুদ্ধিকরণ অধ্যায়ে কথাসাহিত্যিক সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ এর ‘কাঁদো নদী কাঁদো’ উপন্যাসটি আবার পড়তে গিয়ে চমকে উঠলাম।বহু বছর আগে পড়েছিলাম। কিন্তু তখন যে ভাবনাটি আমার মনোজগতে ছায়া ফেলেছিল তা ছিল অতি সাধারণ। কয়েকটি সকরুণ চিত্র। মনে মনে কল্পনা করে নিয়েছিলাম, মরণাপন্ন একটি নদী, যার নাম বাঁকাল, তার কূলে গড়ে ওঠা কুমুরডাঙ্গা নামে কোন এক গ্রাম। তবারক নামের একজন ব্যক্তি পুঁথিপাঠের মত বলে চলেছে সেই গ্রামের নানা গল্প। সে গল্পের সুতো ধরে এসেছে অনেকগুলো চরিত্র। কেউ সবাক। কেউবা আড়ালমুখি এবং নির্বাক। তবে সব চরিত্রকে ছাড়িয়ে বড় হয়ে উঠেছিল বাঁকাল…